Mojar School: Winter Festival 2019, Season-5 was held on 11 January, 2020

Mojar School: Winter Festival 2019, Season-5 was held on 11 January, 2020. Throughout this intense winter, Mojar school has reached around 3600 underprivileged children whereas in the last winter festival we had reached only 1000 children.

Preparations for the winter festival began 3 months before the festival. In the meantime, the team held a total of 14 preparation meetings before the festival, where regular updates to the festival preparations were reviewed. The team went to regular points to take the measurement of the children jacket size, gave the children festival tokens, told them about the festival. This preparation helped to make the festival successful.

This winter festival was successfully completed with the great participation of 200 volunteers. Volunteers played a vital role to complete the festival successfully.Despite of adverse weather in the day of orientation, a large number of volunteer’s arrival to ensure the smiles of children’s was admirable and inspiring.

On the day of the festival, the points were decorated beautifully with the help of volunteers to bring a festive atmosphere to the children. To keep the children entertained, there was a recreational part containing song, dance and poems of children and volunteers. In this section, not only children but also volunteers were equally happy to see the talent of the children. When children saw those red jacket’s with the name of thier own ” Mojar School”, they looked at them with great wonder.

Since the jackets were made before the festival day, children get the jackets according to their proper size. These well-made jackets can give children warmth, will not tear easily and will not be easily destroyed if not burned. Because of the quality, many children still uses the jackets of the last winter festival.

3600 Children from 9 points in Dhaka and another 6 points in Chittagong, Khulna, Mymensingh and Barisal division laughed at once after getting red jackets. The festivals were held at Kamalapur, Sadarghat, Shahbag, Dhanmondi, Agargaon, Maniknagar, Uttara, Khilgaon and Airport – in Dhaka.

The excitement of the children getting the jackets in their hands was priceless. This was an opportunity to witness some of the most unique moments with children. Thanks to all the well-wishers and volunteers without whom Mojar School could not be able to bring a message of warmth to this large amount of children this winter.

 

 

মজার ইশকুলঃঃ শীত উৎসব ২০১৯, সিজন ৭ শেষ হলো ৩,৬০০ সুবিধাবঞ্চিত শিশু ও শিক্ষার্থীদের হাতে শীতের পোশাক পৌঁছে দিয়ে।

গত ১১ জানুয়ারি ২০২০ অনুষ্ঠিত হয় মজার ইশকুলঃ শীত উৎসব ২০১৯, সিজন – ০৫। এর মাধ্যমে এবারের তীব্র শীতে মজার ইশকুল পৌঁছে গেছে প্রায় ৩৬০০ জন সুবিধাবঞ্চিত শিশুর কাছে। গত শীত উৎসবে যেখানে আমরা পৌছিয়েছিলাম ১০০০ জন শিশুর কাছে।

শীত উৎসবের প্রস্তুতি শুরু হয়েছিলো উৎসবের ৩ মাস আগে থেকেই। এর মাঝে উৎসবের পূর্বে মোট ১৪টি প্রস্তুতি মিটিং করেছে টিম, যেখানে উৎসব প্রস্তুতির নিয়মিত আপডেটগুলো পর্যালোচনা করা হয়। শিশুদের জ্যাকেটের মাপ নেয়ার জন্য টিম নিয়মিত পয়েন্টে গিয়েছে, শিশুদের উৎসবের টোকেন দিয়েছে, তাদের উৎসব সম্বন্ধে জানিয়েছে। শক্তিশালী এ প্রস্তুতিই উৎসবের দিন পূর্ণাঙ্গতা পায়।

২০০ জন স্বেচ্ছাসেবীর দুর্দান্ত অংশগ্রহণের ফলেই সফলভাবে সম্পন্ন হলো এবারের শীত উৎসব। ঢাকা সব মোট ৫ টি বিভাবে একযোগে উৎসব সম্পন্ন করার জন্য স্বেচ্ছাসেবীদের ভূমিকা ছিল মূখ্য। শীতে উৎসবের ওরিয়েন্টেশনের দিন প্রতিকুল আবহাওয়াকে উপেক্ষা করে শিশুদের শীতের হাত থেকে রক্ষা করে তাদের মুখে হাসি ফোটানোর উদ্দেশ্যে স্বেচ্ছাসেবীদের এই প্রয়াশ ছিল প্রসংশনীয় এবং একই সাথে অনুপ্রেরণার।

উৎসবের দিন শিশুদের মাঝে উৎসবের একটা আমেজ নিয়ে আসার জন্য সব স্বেচ্ছাসেবীর সহায়তায় পয়েন্টগুলো সুন্দরভাবে সাজানো হয়। শিশুদের বিনোদনের জন্য তাদেরই নাচ, গান, ছড়া আবৃত্তির একটা অংশ রাখা হয়, যেখানে শিশুদের প্রতিভা দেখে শুধু শিশুরাই না স্বেচ্ছাসেবীরাও সমানভাবে আনন্দ পাচ্ছিলো। প্রিয় মজার ইশকুল এর নাম লেখা লাল টুকটুকে জ্যাকেটগুলো শিশুরা দেখছিলো অবাক বিস্ময়ে।

যেহেতু উৎসবের পূর্বে শিশুদের মাপ গ্রহণ করেই জ্যাকেটগুলো প্রস্তুত করা হয়েছিলো শিশুরা তাদের সঠিক মাপ অনুযায়ীই জ্যাকেটগুলো পায়। উন্নতমানের কাপড়ে তৈরি এ জ্যাকেটগুলো শিশুদের উষ্ণতা দিতে পারবে অনেকদিন, সহজে ছিঁড়বে না এবং আগুনে না পুড়ালে সহজে নষ্টও হবে না৷ বিগত শীত উৎসবের জ্যাকেট যে কারণে এখনো অনেক শিশুর গায়ে দেখা যায়।

ঢাকার ৯টি পয়েন্টে এবং ঢাকা ছাড়াও চট্টগ্রাম, খুলনা, ময়মনসিংহ ও বরিশাল বিভাগের ৩৬০০ শিশু জ্যাকেট হাতে পেয়ে একযোগে হেসে উঠে। ঢাকায় কমলাপুর, সদরঘাট, শাহবাগ, ধানমণ্ডি, আগারগাঁও, মানিকনগর, উত্তরা, খিলগাঁও ও এয়ারপোর্ট – এ ৯টি পয়েন্টে উৎসব অনুষ্ঠিত হয়।

জ্যাকেটগুলো হাতে পেয়ে শিশুদের উচ্ছ্বাস ছিলো অন্যরকম। সবমিলিয়ে শিশুদের সাথে অতুলনীয় কিছু মুহুর্তের সাক্ষী হওয়ার সুযোগ হলো এদিন মজার ইশকুল এর। ধন্যবাদ সকল শুভাকাঙ্ক্ষী ও স্বেচ্ছাসেবীদের, যারা না থাকলে এত বিপুল সংখ্যক শিশুর কাছে এ শীতে উষ্ণতার বার্তা নিয়ে মজার ইশকুল কখনোই পৌঁছাতে পারতো না।

Write a comment